বর্তমান বিশ্বে চাইনিজরা খুব উন্নত,
এর রহস্য কি জানেন!

এরা সমালোচককে কখোনোয়
পাত্তা দেয়না, কেও যদি এদের কে
নিয়ে ঠাট্টা বিদ্রুপ করে তবে এরা
সেটিকে সিম্পল ব্যাপার হিসেবে
নেয়,এবং নিজের কাজ সে করেই
চলে।

একটা ব্যাপার লক্ষ করবেন যে
চাইনিজদের আচার ব্যবহার,
চলাফেরা, কথাবার্তা এগুলো
আমাদের কাছে কমেডিয়ান মনে হয়
আমরা এগুলো নিয়ে হাসাহাসি
করি।

একটা রেস্টুরেন্টে যখন একটা
চাইনিজ খেতে বসে তখন খেয়াল
করে দেখবেন রেস্টুরেন্টে উপস্হিত
বাঙালীগুলে নিজেরা না খেয়ে
চাইনিজ লোকটার গপগপ করে খাওয়া
দেখছে আর হাসাহাসি করছে,কিন্ত
এরই মধ্য চাইনিজটা তার খাওয়া শেষ
করে সে তার কাজে চলে যাচ্ছে
কিন্ত বাঙালীগুলো তখোনো
গিলে চলছে।

একটা চাইনিজ ধরুন কখোনো এদেশের
শহরগুলি পরিদর্শনে বেরিয়েছে তখন
দেখবেন রাস্তায় এমন কিছু মানুষ
আছে যারা চাইনিজটাকে চ্যাং
চুং হুং ইত্যাদি বলে বিরক্ত করার
চেস্টা করে কিন্ত চাইনিজ টা
বিরক্ত না হয়ে তাদেরকে মজা দেয়
এবং নিজের কাজ সে চালিয়ে
যায়।

বিশ্বের যে কোন দেশের মানুষ
বিভিন্ন দেশে বেড়াতে যায় মনের
আয়েশ মেটাতে, প্রকৃতি উপভোগ
করতে কিন্ত একটা চাইনীজ কোন
কাজ ব্যাতীত কোন দেশ সফর
করেনা,এরা কাজ ছাড়া কিছু
চেনেনা,এরা যদি ডলার খরচ করে
কক্সবাজার দেখতে আসে তবে শুধু
প্রকৃতি দেখেনা, কোন প্রডাক্টটি
এদেশে ভালো চলবে সে খবরটি
অন্তত নিয়ে বাড়ি যায়।

বাঙালীর পকেটে টাকা কম কিন্ত
রুচি হচ্ছে মনভর্তি, এরা বাথরুমে
যাওয়ার স্যান্ডেলটাও পছন্দ করে
কেনে।

চাইনিজরা যখন বিদেশ ভ্রমনে যায়
তখন এদের পোষাক আশাক দেখে মনে
হয় বাড়ির পাশের দোকানে চা
খেতে যাচ্ছে বোধহয়,একদম
সিম্পলভাবে চলাফেরা করে আর
সেখানে কোন বাংলাদেশী ধরুন
কোন কৃষক সে জায়গা জমি বিক্রি
করে বিদেশে যাচ্ছে মেথরের কাজ
করতে কিন্ত সে পরিধান করে
যাচ্ছে শুটপ্যান্ট। অপচোয়টা কোথায় হচ্ছে! আর কখোন
হচ্ছে এটা বুঝুন।

আপনি যখন চায়নায় যাবেন তখন
আপনার দিকে কেও ফিরেও
তাকাবে না কারন তাদের সময়ের
মূল্য আছে কিন্ত এদেশে যখন একজন
বিদেশী আসে তখন যে পরিমান
মানুষ তার দিকে হাবাইতার মত
তাকিয়ে থাকে সে পরিমান মানুষ
বোধহয় রাস্তায় একজন মরে পড়ে
থাকলেও সে দিকে খেয়াল
রাখেনা।

আমাদের পরিমিত সম্পদ মেধা প্রকৃতি
সবই আছে তারপরও আমরা পিছিয়ে।

আসলে চাইনিজদের চোখ হয় ছোট
ছোট আর আফ্রিকানদের হয় বড় বড়,
ইউরোপিয়ানদের হয় ঘোলা ঘোলা।
কিন্ত এদেশের মানুষের চোখ হচ্ছে
তিনটা রুপ ধারনকারী, নরম মানুষ
দেখলে এদের চোখ বড় বড় হয়ে যায়
আবার গরম মানুষের সামনে পড়লে
ভয়তে চোখ ছোট ছোট হয়ে যায় এবং
কেও উপকার চাইলে এরা চোখে
ঘোলা ঝাপসা দেখে!!

লিখা: Sahariar Nur

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s